Ad Code

Responsive Advertisement

স্বামীকে বোকা বানিয়ে প্রেমিক ফারুকের সঙ্গে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, সাথে সাথে নিয়ে গেছে ১২ লক্ষ টাকা মূল্যের স্বর্ণ নগদ টাকা ও মোবাইল

স্বামীকে বোকা বানিয়ে প্রেমিক ফারুকের সঙ্গে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, সাথে  সাথে নিয়ে গেছে ১২ লক্ষ টাকা মূল্যের স্বর্ণ নগদ টাকা ও মোবাইল 


নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় পরকীয়া প্রেমিকের বাড়ি থেকে ইতালি প্রবাসী শেখ আল আমিনের স্ত্রী সোনাইমুড়ী উপজেলার আমিশা ইউনিয়নের ভদ্রগাঁও গ্রামের মিকার বাড়ির  সামিরা খাতুন (২৩) ও সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের আব্দুল লতিফের স্ত্রী সালমা আক্তার (৪০) সালমা আক্তার (৪০) নামের দুইজনকে গ্রেফতার করেছে রেপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব -১১।  

গ্রেফতারকৃত আসামিদের থেকে চুরি যাওয়া ১৫ ভরি স্বর্ণালংকার, ১টি মোবাইল উদ্ধার করেন র‌্যাব ।

১৭ জুন শুক্রবার রাত ১১টার দিকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানান র‌্যাব-১১, সিপিসি-৩ নোয়াখালী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার মো. শামীম হোসেন।

স্থানীয়দের তথ্যসূত্রে জানা যায়, মো. হুমায়ন কবির একজন ইতালি প্রবাসী। ইতালি থাকার সুযোগে তার স্ত্রী সামিরা খাতুন (২৩) (ছদ্মনাম) ফারুক হোসেন (৩০) নামে এক যুবকের সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত হন। এই বিষয়টি তার শ্বশুর-শাশুড়ি জানতে পেরে তার স্বামীকে বিষয়টি সুম্পর্কে অবগত করেন। 

খবর পেয়ে তার স্বামী মো. হুমায়ন কবির ইতালি থেকে দেশে চলে আসেন। দেশে আসার পর তিনি স্ত্রীকে সংশোধনের চেষ্টা করলে স্ত্রী তাকে নারী নির্যাতন মামলা করে জেল এ পাঠানোর ভয় দেখান।

গত ১৪ জুন স্বামী হুমায়ন বাড়িতে অনুপুস্থিত থাকার সুজুগে সকাল ১০টার দিকে শাশুড়িকে ওষুধ আনার কথা বলে ১৬ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ ১০ হাজার টাকা, ১টি মোবাইলসহ পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে যান স্ত্রী সামিরা খাতুন (২৩) (ছদ্মনাম)।

স্বামী হুমায়ন বাড়িতে এসে স্বর্ণঅলংকার না দেখে ঘটনা বুজতে পারেন এবং, গত বৃহস্পতিবার ১৫ জুন প্রবাসী হুমায়ন কবির (৩৩) র‌্যাব-১১ ক্যাম্পে অভিযোগ করেন। অভিযোগের আলোকে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অভিযুক্ত দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের মূল্য ১২ লাখ টাকা। এ ঘটনায় সোনাইমুড়ী থানায় ভুক্তভোগী প্রবাসী লিখিত এজাহার দাখিল করেছেন।


যারা যাবে তার চলেযাক কিন্তু চুরি করতে হবে কেন.

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ

Ad Code

Responsive Advertisement